বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০২:৩৪ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
সিলেটে প্রকাশ্যে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে সাংবাদিকের টাকা ছিনতাই সিলেট টি-২০ ব্লাস্ট ক্রিকেট টুর্নামেন্টে ফাইনালে কুশিয়ারা রয়েলস্ গোলাপগঞ্জ পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিলরদের শপথ গ্রহণ ৫বোতল মদ সহ ২জন গ্রে’ফতার ভারতের টিকটক তারকা সমীরের আত্মহত্যা দুপুরে আবুল মকসুদের মরদেহ জাতীয় প্রেসক্লাবে নেওয়া হবে! রাতের আধারে অফিসফেরত তরুণীকে ধর্ষণচেষ্টা শীর্ষ ধনীর স্থান হারালেন এলন মাস্ক মোবাইলের নেটওয়ার্ক পেতে নাগরদোলায় মন্ত্রী! যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় মৃত্যু ৫ লাখ ছাড়লো কক্সবাজারে শুরু হয়েছে বিচ তায়কোয়ান্ডো প্রতিযোগিতা সুইমিং পুল কাপালেন সানি লিওন পাবনায় ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ গ্রেনেড হামলার সাজাপ্রাপ্ত আসামি গ্রেফতার সরকারি অফিসের পুকুর খননে অনিয়ম অবৈধভাবে বালু উত্তোলন, ৫০ হাজার টাকা জরিমানা বিশিষ্ট শালিসী ব্যক্তিত্ব আলহাজ্ব মোঃ আলাউদ্দিন আহমদ এর ৪র্থ মৃত্যুবার্ষিকী পালন টিকটক করতে বাধা দেয়ায় স্বামীকে হত্যা করে মিতু দক্ষিণ সুরমায় ফ্রিডম বøাড ডোনেশন অর্গানাইজেশনের স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচির উদ্বোধন সৈয়দপুরে লাঙ্গল ও নৈাকার সংঘর্ষ, আহত ২৫ সিলেটে মাতৃভাষা দিবসে জনতা ব্যাংকের শ্রদ্ধা নিবেদন ও আলোচনা সভা তেতলী ইউনিয়ন ডেভেলপম্যান্ট ফোরামের অভিষেক ও আলোচনা সভা আমাকে ক্ষমা করবেন স্যার :প্রধানমন্ত্রী সিলেট মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন ভাষা দিবসে সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের প্রভাত ফেরি
ভয়ংকর প্রতারক আরশাদ মিয়া উরফে ইমাম হোসেন গ্রেপ্তার

ভয়ংকর প্রতারক আরশাদ মিয়া উরফে ইমাম হোসেন গ্রেপ্তার

নিজের ঘরের একটি কক্ষকে সাজিয়েছেন ফ্রান্সের বাসাবাড়ির আদলে। মুখে রেখেছেন ফ্রেঞ্চকাট দাড়ি। সফটওয়ারের মাধ্যমে ব্যবহার করেন ফ্রাঞ্চের নাম্বার। এতকিছুর পেছনে একটাই টার্গেট অবিবাহিত সুন্দরী তরুণী। ফ্রান্সের বাসাবাড়ির আদলে সাজানো কক্ষ থেকে সফটওয়ারের মাধ্যমে ফ্রান্সের ফোন নাম্বার থেকে কথা বলেন তরুণীদের সাথে। কখনো ফোনে, কখনো ইমুতে আবার কখনো হোয়াটঅ্যাপে। বিয়ে করে ইউরোপে নিয়ে যাওয়ার প্রলোভনে ফেলেন তাদেরকে। কাউকে গোপনে বিয়ে করেন আবার কাউকে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে ঝুলিয়ে রেখে আদায় করেন মোটা অংকের টাকা। ফ্রান্স প্রবাসী পরিচয়ে এমন প্রতারণা করে অসংখ্য মেয়ের সর্বনাশ করে অবশেষে পুলিশের খাঁচায় বন্দী হয়েছেন তিনি। ভয়ংকর এই প্রতারকের নাম আরশাদ মিয়া উরফে ইমাম হোসেন (৪২)। তার কাছে প্রতারিত হয়ে সর্বস্বান্ত হওয়া এক তরুণীর মামলার প্রেক্ষিতে বুধবার (২০ জানুয়ারি) দিবাগত রাত ৪টার দিকে সুনামগঞ্জ জেলার জগন্নাথপুর উপজেলার ঘোষগাঁও (কোনাপাড়া) গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে জগন্নাথপুর থানা পুলিশের সহযোগিতায় তাকে গ্রেপ্তার করে বিশ্বনাথ থানা পুলিশ। তিনি ওই গ্রামের মৃত আবদুল কুদ্দুছের ছেলে। গত বছরের ২৭ ডিসেম্বর সিলেটের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত ৩ এ ইমাম হোসেনকে প্রধান অভিযুক্ত করে ৫জনের বিরুদ্ধে মামলা (বিশ্বনাথ সি.আর মামলা নং-২৩২/২০২০) দেন সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলার ভাদেশ্বর গ্রামের ক্ষতিগ্রস্থ ওই তরুণী। আদালতের নির্দেশে গত ২ জানুয়ারি বিশ্বনাথ থানায় মামলা (নং-৩) রুজু হয়। মামলার অপর আসামীরা হলেন সিলেটের ওসমানী নগরের দিরারাই গ্রামের আবদুল জব্বারের ছেলে বশির উদ্দিন, সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার ঘোষগাঁও গ্রামের দুদু মিয়ার ছেলে লেবু মিয়া মিন্টু, তার স্ত্রী মিনু ও বাওধরন গ্রামের মৃত তরমুজ আলীর ছেলে রুপন আহমদ। ক্ষতিগ্রস্থ তরুণী জানান, ‘বিশ্বনাথের রামপাশা ইউনিয়নের রামপাশা গ্রামে আমার বড় বোনের বাড়িতে আমি বসবাস করে আসছি। বড় বোন তার পূর্ব পরিচিত ঘটক বশির উদ্দিনের মাধ্যমে জানতে পারেন একজন ফ্রান্স প্রবাসী বিয়ের জন্যে পাত্রী খুঁজছেন। আমি বিয়ের উপযুক্ত হওয়ায় আমার বোন আমার একটি ছবি ঘটককে দেন। ছবি দেখে পাত্র পক্ষ আমাকে পছন্দ করে। সে সময় ঘটক পাত্রের ফ্রান্সের নাম্বার আমাদেরকে দেন। পরবর্তীতে আমার ব্যবহৃত ফোনে ইমুতে ও হোয়াটঅ্যাপে নিজেকে ‘আরশাদ মিয়া’ পরিচয় দিয়ে কথা বলেন ওই ফ্রান্স প্রবাসী। এক পর্যায়ে ২০১৯ সালের ১৮ এপ্রিল সিলেট শহরের একটি বাসায় অভিযুক্ত লেবু মিয়া মিন্টু, মিনু ও রুপন আহমদের উপস্থিতিতে অজ্ঞাত নিকাহ রেজিস্টারের মাধ্যমে তিনি আমাকে বিয়ে করেন। বিয়ের পর আমার পাসপোর্ট করা, ইউরোপ নিয়ে যাওয়াসহ বিভিন্ন কাজ ও সমস্যা দেখিয়ে বিভিন্ন সময়ে আমার বোনের কাছ থেকে প্রায় ৮ লক্ষ টাকা নেন আরশাদ মিয়া। গত বছরের ১৭ মার্চ আরশাদ মিয়ার কাছে আমার কাবিনের একটি কপি অথবা নিকাহ রেজিস্টারের নাম পরিচয় চাইলে তিনি কিছুই দেননি। এরপর থেকে আমার সাথে যোগাযোগই বন্ধ করে দেন। সন্দেহ হলে আমরা খোঁজ নিয়ে জানতে পারি, আরশাদ মিয়ার আসল নাম ইমাম হোসেন। ভূয়া ফ্রান্স প্রবাসী। তিনি ও অন্য আসামীরা সকলেই সংবদ্ধ প্রতারক চক্রের সদস্য।’ মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) দেবাশীষ শর্ম্মা জানান, ‘পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ৪টি বিয়ে করেছে বলে জানিয়েছে ইমাম হোসেন। তবে, আমাদের ধারণা তার বিয়ের সংখ্যা ১৫/২০টির মত হবে। তার মোবাইল ফোন ঘেটে পুলিশ অনেক তথ্য ও অসংখ্য মেয়ে সাথে তার ছবি পেয়েছে। সে শতাধিক মেয়ের সর্বনাশ করেছে বলে ধারণা করছি। তার রিমান্ড চাইবে পুলিশ।’ প্রতারক ইমাম হোসেনকে গ্রেপ্তারের সত্যতা নিশ্চিত করে বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) শামীম মুসা বলেন, তাকে বৃহস্পতিবার দুপুরে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  

Please Share This Post in Your Social Media

Comments are closed.




Calendar

February 2021
S S M T W T F
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031  



  1. © All rights reserved © 2021 sylhet71news.com
Design BY Sylhet Hosting
sylhet71newsbd
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com