রবিবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২১, ০৪:০০ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
একাধিক মামলার আসামির পা এবং চোখ নষ্ট করে দিয়েছে এলাকাবাসী সৌদির লোভনীয় প্রস্তাব ফিরিয়ে দিলেন মেসি দুনিয়ার সবচেয়ে স্বাস্থ্যকর নগরী মদিনা নিরাপত্তার জন্য ক্ষমতাসীনদের আগে টিকা নেয়া উচিত: রিজভী তুরস্কের জাহাজে জলদস্যুদের হামলা: নিহত ১ ২৭ জানুয়ারি সিলেট এমসি কলেজে গৃহবধূ ধর্ষণ মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ গণতন্ত্র চর্চায় শেখ হাসিনা অনন্য: ওবায়দুল কাদের দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির নিয়মিত ক্লাস হবে: দীপু মনি পরীক্ষা ছাড়াই এইচএসসির ফল প্রকাশের বিল পাস সংসদে আজ ঐতিহাসিক গণঅভ্যুত্থান দিবস অবশেষে আলোর মুখ দেখতে যাচ্ছে ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক চার লেন প্রকল্প বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক অথরিটি স্টার্টআপ কম্পিটিশন সম্পন্ন সিলেট ট্যুরিস্ট ক্লাবের বার্ষিক সাধারণ সভা ও আহ্বায়ক কমিটি গঠন চিংড়ি মাছের গায়ে লেখা আল্লাহু”দেখতে শত শত মানুষের ভিড় পুনরায় সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাবের নেতৃত্বে মুহিত ও মকসুদ গোলাপগঞ্জে পাকা ঘর পেলেন ৭৭টি গৃহহীন পরিবার ইউনিয়নবাসীর দোয়া ও সমর্থন চান চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী প্রভাষক জাহিদ বর্তমান সরকার খেলাধুলার প্রসারে আন্তরিক: সরওয়ার হোসেন দক্ষিণ সুরমায় প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক আব্দুল আউয়ালের ইন্তেকাল, দাফন সম্পন্ন কলমাকান্দায় য়াবা মাদকসহ আটক ৩ লেনদেনের শীর্ষস্থানে রবি আজিয়াটা ইরাকে মার্কিন সামরিক গাড়ি বহরে বোমা হামলা সিলেটের ওসমানীনগরে চালককে খুন, রিকশা ছিনতাই স্তন ক্যানসারের ঝুঁকি কমায় মাশরুম বিএনপি ষড়যন্ত্র তত্ত্বে বিশ্বাসী: ওবায়দুল কাদের
বিজয়ের মাস শুরু

বিজয়ের মাস শুরু

ডেস্ক : এক সাগর রক্তের বিনিময়ে বীর বাঙালি বিজয় ছিনিয়ে এনেছিল ১৯শ একাত্তরের ১৬ ডিসেম্বর। দেখতে দেখতে আমরা পেরিয়ে এলাম ৪৯ বছর। বছর ঘুরে আবার এলো বিজয়ের মাস ডিসেম্বর। স্বাধীনতাকামী বাঙালির হৃদয়ে মাসটি মহা আনন্দের, মহা গৌরবের, অপার্থিব সৌরভের, একইসঙ্গে শোকেরও।

একাত্তরের ১৬ ডিসেম্বর চূড়ান্ত বিজয় অর্জিত হলেও বাঙালির স্বাধীনতার রক্তলাল সূর্যোদয়ের ভিত্তি সূচিত হয়েছিল বেশ আগেই। ১৯৭১ সালের ৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ভাষণে উদ্দীপ্ত বাঙালি জাতি স্বাধীনতা অর্জনের দৃঢ় শপথ নিয়েছিল। ২৫ মার্চের কালরাতে পাকিস্তান হানাদার বাহিনীর নির্মম নৃশংস হত্যাকাণ্ডের পর বাংলার দামাল ছেলেরা রুখে দাঁড়িয়েছিল শোষণের বিরুদ্ধে। এরপর টানা ৯ মাসের রক্তক্ষয়ী সংগ্রাম আর আত্মদানের মাধ্যমে আসে কাঙ্ক্ষিত বিজয়।

১৯শ একাত্তর সালের ডিসেম্বর মাসের প্রতিটি দিনই ছিল ঘটনাবহুল। স্বাধীনতাকামী বাঙালির হৃদয়ে বিজয়ের বৈজয়ন্তী উড়িয়ে আসা সেই দিনগুলো ছিল গৌরবের, শিহরণের, পরম আরাধ্যের। পাকিস্তানকে পর্যুদস্ত করে অর্জিত সে বিজয় ছিল আনন্দের— প্রিয়জন হারানো শোকেরও বটে।

সেই শোককে শক্তিতে পরিণত করে এবং বিজয়ের সেই আনন্দকে বুকে ধারণ করে বিগত ৪৯ বছরে একটু একটু করে বদলে গেছে আমাদের স্বপ্ন স্বদেশভূমি। স্বল্পোন্নত দেশ থেকে এখন আমরা পৌঁছে গেছি উন্নয়নশীল দেশের কাতারে। সব চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে তরুণ প্রজন্ম নতুন উদ্দীপনায় দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে দেশপ্রেম, গণতান্ত্রিক ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা হৃদয়ে ধারণ করে।

১৯৭১ সালের ডিসেম্বরের শুরু থেকেই বাঙালি বীর সন্তানদের সঙ্গে যুদ্ধে একের পর এক পরাজিত হতে থাকে পাকিস্তান সামরিক বাহিনী। ক্রমাগত পরাজয়ে তারা দিশেহারা হয়ে পড়ে। ১ ডিসেম্বর নিউইয়র্ক টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, বাংলাদেশের অভ্যন্তরে গেরিলা হামলা অস্বাভাবিক বেড়ে যাওয়ায় পাকিস্তানের সামরিক বাহিনীর পদস্থ কর্মকর্তাদের নির্দেশে সেনাবাহিনী আরও ভয়াবহভাবে নিরীহ জনগণের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়েছে। বুড়িগঙ্গা নদীর অপর পারে জিঞ্জিরাতে সারিবদ্ধভাবে দাঁড় করিয়ে এক দিনেই হত্যা করা হয় ৮৭ জনকে।

এ সময় বাঙালির স্বাধীনতার লড়াইকে আড়ালে রাখতে প্রেসিডেন্ট ইয়াহিয়া খান পাক-ভারত যুদ্ধ শুরু হয়েছে বলে বেতারে ঘোষণা দেন। তবে সেদিন কোনো ষড়যন্ত্রই বাঙালিকে বিজয় অর্জন থেকে পিছিয়ে রাখতে পারেনি। মাতৃভূমিকে হানাদারমুক্ত করতে তারা মরণপণ লড়াই চালিয়ে যান।

একদিকে পাকিস্তানি বাহিনীর বিরুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধাদের প্রাণপণ যুদ্ধ, অন্যদিকে মিত্রবাহিনীর সাঁড়াশি আক্রমণে জীবন বাঁচাতে পাকিস্তানি হানাদাররা বীর বাঙালির কাছে আত্মসমর্পণের পথ খুঁজতে থাকে। একপর্যায়ে বাংলাদেশ দ্রুত মুক্তিযুদ্ধের চূড়ান্ত বিজয়ের দিকে এগিয়ে যায়। রক্তক্ষয়ী সংগ্রামের পথ বেয়ে আসে পরম কাঙ্ক্ষিত স্বাধীনতা।

১৯৭১ সালের আজকের দিনে মুক্তিবাহিনী সিলেটের শমশেরনগরে আক্রমণ চালিয়ে টেংরাটিলা ও দোয়ারাবাজার শত্রুমুক্ত করে। মুক্তিবাহিনীর অপারেশনের মুখে পাকিস্তানিরা সিলেটের গ্যরা, আলীরগাঁও ও পিরিজপুর থেকেও ব্যারাক গুটিয়ে নেয়। এ সময় রাওয়ালপিন্ডিতে পাকিস্তানের এক মুখপাত্র ‘শেখ মুজিবুর রহমানের বিচার শেষ হয়নি’ বলে বিবৃতি দেন।

একই দিনে ভারতের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী তার পার্লামেন্ট বক্তৃতায় উপমহাদেশে শান্তি প্রতিষ্ঠার স্বার্থে বাংলাদেশ থেকে পাকিস্তানি সৈন্য সরানোর জন্য ইয়াহিয়া খানের প্রতি আহ্বান জানান। জামায়াতে ইসলামীর শীর্ষ নেতা গোলাম আযম এ সময় ইয়াহিয়া খানের সঙ্গে বৈঠক করে ‘পূর্ব পাকিস্তান’ থেকে প্রধানমন্ত্রী ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী নিয়োগের দাবি তোলেন। স্বাধীন বাংলাদেশে যুদ্ধাপরাধী হিসেবে কুখ্যাত গোলাম আযম তখন মুক্তিযুদ্ধকে ‘কমিউনিস্টদের অপতৎপরতা’ হিসেবে অভিহিত করে সবাইকে সতর্ক থাকতে বলেন।

বিজয়ের ৪৯তম বর্ষে ডিসেম্বর মাস শুরুর প্রাক্কালে বাঙালির মনে অন্যতম বড় স্বস্তির কারণ এই যে দীর্ঘকাল পর হলেও জাতির শাপ মোচন হয়েছে। সব প্রতিবন্ধকতা পেরিয়ে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে এগিয়ে চলায় ২৬ জনের বিচারের রায় হয়েছে। কুখ্যাত ছয় যুদ্ধাপরাধীর মৃত্যুদণ্ডের রায় কার্যকরও হয়েছে।

তবে বৈশ্বিক মহামারি নোভেল করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) কারণে প্রতিবছরের মতো এবার আর বিজয়ের মাসে দেশবাসী বিজয় ও মুক্তির আনন্দে উল্লাস করতে পারবে বলে মনে হচ্ছে না। ভালোবাসায় উজ্জীবিত ও শোকে মূহ্যমান হয়ে জাতীয় স্মৃতিসৌধে গিয়ে অগণিত মুক্তিযোদ্ধাকে শ্রদ্ধা জানাবার সুযোগ এবার আর পাচ্ছে না বাঙালি জাতি। তবে সবার হৃদয়ের গহীন কোণ থেকে চেতনায় অনুরণিত হবে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি ও শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা, অপার ভালোবাসা।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  

Please Share This Post in Your Social Media

Comments are closed.




Calendar

January 2020
S S M T W T F
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930
31  



  1. © All rights reserved © 2021 sylhet71news.com
Design BY Sylhet Hosting
sylhet71newsbd
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com