সর্বশেষ সংবাদঃ-

» দুধের শিশুকে ফেলে পরকীয়া প্রেমিকের সাথে পালালো মা

প্রকাশিত: 11. May. 2019 | Saturday

Spread the love

সিলেট৭১নিউজ ডেস্ক: মাত্র ১০ মাসের বয়সী শিশু শাকিল। ক্ষুধার যন্ত্রনায় কাতরাচ্ছে গত এক সপ্তাহ ধরে। ধীরে ধীরে অসুস্থ হয়ে পড়ছে নিষ্পাপ এ শিশুটি। নির্মম হলেও সত্য শিশুটির এ দূর্বিসহ পরিস্থিতির জন্য একমাত্র দায়ী তার নিজেরই মা। শিশুটির মা তানিয়া আক্তার(২২) গত ১৫ এপ্রিল তার পরকীয়া প্রেমিক আজিজুলের সাথে নিরুদ্দেশ হন। যাবার আগে তানিয়া তার একমাত্র শিশু সন্তানকে বাবার বাড়িতে ফেলে রেখে যান। পালানোর সময় ব্যাংক থেকে ২ লক্ষ টাকা তুলে নেন তানিয়া এবং সঙ্গে ৮ ভরি স্বর্ণ নিয়ে যান তিনি। এ বিষয়ে তানিয়ার প্রবাসী স্বামী মোহাম্মদ রানা সিংগাইড় থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন।

জিডি থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুসারে জানা গেছে- ৫ বছর পূর্বে পারিবারিকভাবে তানিয়া আক্তারকে বিয়ে করেন মানিকগঞ্জ জেলাধীন সিংগাইড় থানার চাইন্দর গ্রামের বাসিন্দা সৌদি প্রবাসী মোহাম্মদ রানা। বিয়ের পর থেকে বেশ সুখেই কাটছিলো তাদের সংসার। এমনকি গত বছর একটি ছেলে সন্তান জন্ম দেয় তানিয়া। তানিয়ার মা-বাবা দুজনই সৌদি প্রবাসী। ওদিকে স্বামীও প্রবাসে থাকার সুযোগে গোপনে লক্ষীপুরের আজিজুল হোসেন নামে এক যুবকের সাথে মোবাইল ফোনে পরকীয়া প্রেমে জড়িয়ে পড়ে। সবার অলক্ষ্যেই গোপন প্রণয় চালিয়ে যাচ্ছিলো তানিয়া। কিন্ত কেউ আঁচ করতে পারেনি নিজের জন্ম দেয়া সন্তান এভাবে ফেলে পালাতে পারে তানিয়া। ঘটনার দিন সকাল ১১ টায় চাইন্দর বাজার সোনালী ব্যাংকে টাকা তোলার কথা বলে তানিয়া তার ছোট্ট শিশু শাকিলকে তার বাবার বাড়ি নানির কাছে রেখে আসে। সেসময় সে জানায় টাকা তুলে আধঘন্টার মধ্যেই ফিরে আসবে সে। কিন্ত ৫ ঘন্টা হয়ে গেলেও তানিয়া আর ফিরছেনা ওদিকে তানিয়ার শিশু সন্তান শাকিলের ক্ষুধার্ত কান্না দেখে তার বাবার বাড়ির লোকজন ব্যাংকে খোঁজ নিয়ে জানতে পারে বহু আগেই ২ লাখ টাকা উঠিয়ে চলে গেছে সে। এসময় তানিয়ার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনও সুইচ অফ দেখাচ্ছিলো। এরপর টানা দুদিন বিভিন্ন জায়গায় খোঁজা খুজি করে না পেয়ে সিংগাইড় থানায় তানিয়ার স্বামী মোহাম্মদ রানার পক্ষ থেকে একটি জিডি করা হয়। এরইমধ্যে পালিয়ে যাবার ৩ দিনের মাথাশ তানিয়া তার ব্যবহৃত মোবাইল নম্বরটি দিয়ে তার স্বামী রানাকে কল দেয় এবং জানতে চায় তার সন্তান কেমন আছে? এসময় তানিয়ার স্বামী রানা তানিয়াকে জানায় তাদের সন্তান গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি আছে। তুমি ফিরে এসো। জবাবে তানিয়া জানায় সে আজিজুলের সাথে সিলেট আছে এবং আর কখনো ফিরবেনা। এরপর থেকে তানিয়ার ফোন আবারো বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে। তবে কে এই আজিজুল তার বিস্তারিত কোন তথ্য এখনো পাওয়া যায়নি। তবে এ অযাচিত ঘটনায় তানিয়ার মা-বাবা ও স্বামী সহ সকলেই ভেঙ্গে পড়েছেন।

সুত্র:অগ্রযাত্রা

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৫০৬ বার

[hupso]
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com